ছবিঃ পূণ্যার্থীবৃন্দ

বেতবুনিয়ায় প্রজেক্টরের মাধ্যমে টিএফবি’র অতীত ও চলমান কার্যক্রম প্রদর্শিত হয়ে আসছে বিগত চার-পাঁচ বছর ধরে। এর উদ্দেশ্য-ই হলো ধর্মীয় সংস্থা হিসেবে টিএফবি’র কার্যক্রম যে সত্যিকারার্থেই উপজীব্য সেটি সর্বসাধারণের মাঝে ছড়িয়ে দেয়া। গত ২৫ ডিসেম্বর ২০১৩ইং বেতবুনিয়া গ্রাম নিবাসী বিশিষ্ট শিক্ষক বাবু শান্তিময় চাকমার আবাস গৃহাঙ্গানে টিএফবি’র কার্যক্রম প্রতিবেদন। এতদঞ্চলের প্রথম বৌদ্ধ সাংস্কৃতিক উৎসবের প্রামাণ্যচিত্র এবং বিগত দিনগুলোতে টিএফবি’র উল্লেখযোগ্য অনুষ্ঠান সমূহ প্রদর্শন করা হয়।

কাউখালীতে গত ২৭ ডিসেম্বর ২০১৩ কাউখালীর পোয়াপাড়াতে উলুপিমা (জোনাকী চাকমাদের) নব নির্মিত আবাস ভবনে ধর্মীয় স্বস্তায়ন অনুষ্ঠানে ভদন্ত ফুস্য স্থবির প্রমুখ ভিক্ষু সংঘ, টিএফবি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ভদন্ত জিনবোধি মহাথের এবং ভদন্ত ধর্মকীর্তি স্থবির উপস্থিত ছিলেন।

ভদন্ত ফুস্য স্থবির মহোদয় তার ধর্ম দেশনা প্রসঙ্গে টিএফবি’র কার্যক্রমকে এগিয়ে নেয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করেন এবং দায়ক-দায়িকাদের প্রতি টিএফবি’র সাথে থেকে সর্বাত্নক সহযোগিতা প্রদানের আহবান জানান। বর্তমান দিকভ্রান্তি ও অবক্ষয়ের ব্যস্ত বৌদ্ধ সমাজের মুক্তির অববাহিকা সৃজনে ত্রিশরণ ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ (টিএফবি) যেই নিরলস প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে- তজ্জন্য তিনি টিএফবি’র প্রশংসা করেন এবং বৃহত্তর কল্যাণে টিএফবি’র অপরিহার্যতা তুলে ধরেন। উল্লেখ্য এই ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বিপুল সংখ্যক শ্রদ্ধাবান উপাসক উপাসিকার সমাগম ঘটে অনুষ্ঠানে সংঘদান, অষ্টপরিষ্কার দান, বুদ্ধ মূর্তি দান, পরিত্রাণ শ্রবণ এবং ভিক্ষু সংঘকে পিন্ডদান ও বিবিধ দান সম্পন্ন হয়।

ত্রিরত্নাংকুর- বন বিহারের গত ১০ জানুয়ারি ২০১৪ইং রোজ শুক্রবার রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলাধীন কাউখালী উপজেলা সদরে ত্রিশরণ ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ (টিএফবি)’র এক ধর্মদূত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে স্বনামধন্য বৌদ্ধ প্রতিষ্ঠান ত্রিরত্নাংকুর বন বিহারের সন্ধ্যা থেকে রাত ৮৩০ মিঃ পর্যন্ত প্রজেক্টরের মাধ্যমে বনভন্তের দেশনা, বৌদ্ধ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও টিএফবি’র কার্যক্রম দেখানো হয় এবং পাশাপাশি আলোচনা করা হয়। আলোচনায় ছিলেন- প্লেটো চাকমা (পোয়পাড়া মডেল হাইস্কুলের সহকারী শিক্ষক) জোনাকি চাকমা (উলুপিমা) (টিএফবি’র- মাঠকর্মী) এবং বিহারাধ্যক্ষ শ্রদ্ধেয় ফুস্য স্থবির। উক্ত কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় আলোচকদের উৎসাহ ব্যঞ্জক মন্তব্য উঠে আছে। পরিশেষে ভদন্ত জিনবোধি মহাথের মহোদয় সকলকে সাধুবাদ জ্ঞাপন এবং টিএফবিকে একটি চারা গাছের ন্যায় যত্ন নেয়ার হিতোপদেশ প্রদান করেন।