গত ১৮ মার্চ ১০ এপ্রিল এবং ১লা আগষ্ট তিনদিন পর্যায় ক্রমে মত বিনিময়, শিক্ষার্থীদের সাথে আলাপচারিতা এবং শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে পুণর্মিলনী অনুষ্ঠানের আয়োজন কর হয় –টিএফবি’র সৌজন্যে।

ছবিঃ ছবিটি কি সম্বন্ধে?

রাঙ্গামাটি সদরে মানিকছড়িস্থ সাপছড়ি উচ্চ বিদ্যালয় অঙ্গনে বিদ্যালয়টির সরকারি ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বাবু বিপিন চন্দ্র চাকমার সভাপতিত্বে কৃতি শিক্ষার্থী অভিভাবক, পড়ুয়া অন্যান্য ছাত্র-ছাত্রীদের যৌথ অংশগ্রহণে এক অন্যবদ্য মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয় ২৮ মার্চ ২০১৪। কৃতি শিক্ষার্থী বর্ণা চাকমা এবং প্লাবণ চাকমা তাদের শিক্ষা জীবনের বিশ্লেষণধর্মী সাতকাহন উপস্থিত সকলের সমক্ষে বক্তব্যেও আকারে তুলে ধরে।

শিক্ষাক্ষেত্রে উৎসাহসহ সম্ভাবনাকে এগিয়ে নেয়ার মধ্যে দিয়ে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ রচনার লক্ষ্যে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শ্রীমৎ আনন্দ স্থবির এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন বাবু পূর্ণ জ্যোতি চাকমা, সহকারী প্রকৌশলী পল্লী বিদ্যু, রাউজান চট্টগ্রাম প্রমুখ অন্যান্য শিক্ষক মন্ডলী। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন টিএফবি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শ্রীমৎ জিনবোধি মহাথের ১০ এপ্রিল ২০১৪ইং, স্থানীয় বোধিপুর বন বিহার প্রাঙ্গণে শোভারানী চাকমা এবং সোনালী চাকমা কৃতি ছাত্রীদ্বয়ের শিক্ষা জীবনের বিভিন্ন টানাপোড়েন সত্ত্বেও তাদের এগিয়ে যাবার প্রেরণার প্রেক্ষাপট নিয়ে বিশিষ্ট্য শিক্ষানুরাগী ও সজ্জনদের এক সিম্পোজিয়ম অনুষ্ঠিত হয়।

১লা আগষ্ট ২০১৪ইং টিএফবি হোমিওপ্যাথি চিকিৎসালয় (বোধিপুর মার্কেট শেড) এ অনুষ্ঠিত হয় কৃতি শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে সমাপনী সেমিনার। এতে মূল বক্তব্য উপাস্থপন করেন সুদৃষ্টি চাকমা (মিষ্টি) উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা, মাটিরাঙ্গা, খাগড়াছড়ি এবং বর্ণা চাকমা শিক্ষক বরকল কারিগরী প্রশিক্ষণকেন্দ্র। স্বাগত বক্তব্য পেশ করেন বাবু পূর্ণ চন্দ্র চাকমা এবং সভাপতিত্ব করেন টিএফবি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শ্রদ্ধেয় শ্রীমৎ জিনবোধি মহাথের। আলোচকবৃন্দ, বিশিষ্ট্য শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে রাঙ্গামাটি বৌদ্ধ সাংস্কৃতির একাডেমীর বোধিপুর শাখার সঙ্গীত শিল্পীরা দেশের গান এবং শিক্ষামূলক সঙ্গীত পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে ত্রিশরণসহ পঞ্চশীল গ্রহণ, অষ্টপরিষ্কার দান, উৎসর্গ এবং তৎপূর্বে ভিক্ষু সংঘ প্রমুখ অতিথিবর্গ কে ফুলের তোরা দিয়ে বরণ করে নেয়া হয়। বৌদ্ধ সাংস্কৃতিক আদলে সভা সমিতির কাজ শুরু ও শেষ করার রেওয়াজ এভাবে আমাদের সমাজে চালু হওয়া উচিত বলে উপস্থিত সভ্যবৃন্দ অভিমত প্রকাশ করেন।